প্রযুক্তি

এখনই আনইনস্টল করুন এই চার অ্যাপ!

এই চার অ্যাপ – স্মার্টফোনে এমন অনেক অ্যাপ থাকে যে অ্যাপগুলি আমরা কখনোই ব্যবহার করি না। অথবা এমন কিছু অ্যাপ থাকে যেগুলি দেখে মনে হয় আমাদের ফোনের পারফর্মেন্স ভালো করতে কাজে লাগছে, কিন্তু আসলে এই অ্যাপগুলি নষ্ট করে দিচ্ছে ফোনের ব্যাটারি পারফর্মেন্স। আসুন দেখে নেওয়া যাক এমনি ৪ ধরনের অ্যাপ যা এখনই আনইনস্টল করা প্রয়োজন আপনার ফোন থেকে-

১) RAM সেভিং অ্যাপ-  স্মার্টফোনে এমন কোন অ্যাপ আছে যা দাবি করে যে তা ফোনের র‌্যাম সেভ করছে। আসলে সব সময় ফোনের ব্যাকগ্রাউন্ডে চলে আরও বেশি র‌্যাম ও ব্যাটারি নষ্ট করছে এই অ্যাপগুলি। তাই মুখে এক কথা বললেও পিছনে বসে অন্য কাজ করছে এই অ্যাপগুলি। অ্যানড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম নিজে থেকেই ম্যানেজ করতে পারে এর র‌্যাম। তাই এই কাজের জন্য প্রয়োজন হয় না আলাদা কোন অ্যপ।

২) ক্লিন মাস্টার অ্যাপ-  অ্যানড্রয়েড ফোনে কোন অ্যাপ আনইন্সটল করার পর অনেক সময় ঐ অ্যাপের ক্যাশড ফাইলগুলি আপনার ফোনে থেকে যায়। সেই ফাইলগুলি ডিলিটের জন্য প্রয়োজন হয় না আলাদা কোন অ্যাপের। এর জন্য খুব সহজেই সেটিংস এ গিয়ে স্টোরেজ সিলেক্ট করে স্ক্রোল ডাউন করে ক্যাশড ডাটাতে ট্যাপ করুন। এতেই ডিলিট হয়ে যাবে আপনার ফোনের সব অপ্রয়োজনীয় ফাইল। এই সাধারণ কাজের জন্য একটি আলাদা অ্যাপ ব্যাবহার করলে অযথা স্লো হয়ে যাবে আপনার ফোন।

৩) ফেসবুক-  সম্প্রতি ফেসবুকের ডাটা চুরি নিয়ে কম বিতর্ক হয়নি বিশ্বজুড়ে। আপনার ফোনের ব্যাক্তিগত তথ্য অন্য কোম্পানিকে আপনার আনুমতি বিনাই পাঠিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ফেসবুকের বিরুদ্ধে। এছাড়াও সম্প্রতি ফেসবুকের অফিশিয়াল অ্যাপটি এক বিশাল আকার ধারন করেছে। তাই এই অ্যাপ ইন্সটল করলে স্লো হয়ে যাচ্ছে বেশিরভাগ ফোন। এছাড়াও ফেসবুক অ্যাপ ব্যাকগ্রাউন্ডে চলে অযথা নষ্ট করছে প্রচুর ব্যাটারি। ফেসবুক অ্যাপ আনইন্সটল করে দিলে সুরক্ষিত থাকবে আপনার ফোনের ব্যাক্তিগত তথ্য আর স্বাস্থ্য ভালো থাকবে ফোনের।

৪) ব্যাটারি সেভিং অ্যাপ-  র‌্যাম ও মেমরি ক্লিনিং অ্যাপের মতোই ব্যাটারি সেভিং অ্যাপগুলিও চলতে থাকে আপনার ফোনের ব্যাকগ্রাউন্ডে। তাই ব্যাটারি সেভ করার বাহানা দিয়ে আসলে অনেক ব্যাটারি নষ্ট করে এই ফোনগুলি। তাই এখনই আনইন্সটল করা উচিত এই ধরনের অ্যাপগুলি।

আপনার মতামত