সংবাদ | বিনোদন | সারাক্ষন

কোকাকোলা চুলকে সিল্কি ঝলমলে সুন্দর করে দেবে মুহুর্তের মধ্যে

কোকাকোলা চুলকে – আজকের পোষ্ট টি দেখে কি অবাক হচ্ছেন?অবাক হওয়ার কিছু নেই এটা সম্পুর্ন সত্যি।কোকাকোলা ব্যবহার করে আপনার চুলে এমন চমক আসবে যে আপনি নিজেই চমকে যাবেন।ভয় পাচ্ছেন?চুলের কোনো ক্ষতি হবে কি না।একদমই না বরং আপনার চুল হবে মজবুত।বিশ্বাস হচ্ছে না তাহলে আজই একবার ব্যবহার করে দেখুন পার্থক্যটা নিজেই দেখে চমকে যাবেন।

ব্যবহারের নিয়ম দেখে নিন: কীভাবে ব্যবহার করবেন আপনার চুলের ঘনত্ব অনুযায়ী কোকাকোলা নিন। এবার একটি বড় বোল নিয়ে তার উপর উপর হয়ে সব চুল পেছন থেকে সামনের দিকে নিয়ে আসুন। তারপর আস্তে আস্তে কোকাকোলা ঢেলে সম্পূর্ণ চুল ভিজিয়ে নিন। ১০-১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। চুল মিছে শুকিয়ে নিন তারপর পার্থক্য দেখুন নিজেই।

উপকারিতা # মাঝে মাঝে চুল ধোয়ার জন্য কোমল পানীয় ব্যবহার করলে চুলের পুরো লুকই বদলে যায়।

# কোকাকোলা চুলকে বেশ মজবুত করে।

# সাধারণত যারা চুলে কালার করতে চান বা চুলের কালারকে ব্রাইট করতে চান তাদের জন্য কোকাকোলা বেশি কার্যকরী উপাদান।

# এছাড়াও চুল ঝলমলে করতে এবং দ্রুত চুল লম্বা করতে কোকাকোলা ভালো কাজ করে।

# চুলে ভলিয়ম লুক ফিরিয়ে আনতে সাহায্য করে।

# আবার কেউ বা বলেছেন পদ্ধতিটি তাদের পছন্দ হয়েছে কিন্তু সব সময় তারা চুলে কোকাকোলা ব্যবহার করবেন না। কারণ শ্যাম্পু আর কোকাকোলার মাঝে তারা খুব বেশি পার্থক্য খুঁজে পাননি।। তবে কোকাকোলা চুলের উপকার করে না অপকার করে সেটা ব্যবহারের পরেই বুঝতে পারবেন। তাহলে আর দেরি না করে আজই একবার কোকাকোলা দিয়ে চুল ধুয়ে দেখুন তো কী ঘটে?

Comments
লোড হচ্ছে...