চিত্র বিচিত্র

পৃথিবীর ক্ষুদ্রতম ১০ টি দেশ যেগুলোর অস্তিত্ব সম্পর্কে অনেকেই জানেন না!

পৃথিবীর ক্ষুদ্রতম ১০ টি – বিশ্বে ২০০ টিরও বেশি দেশ আছে, আমরা সাধারণত মনে করি আমরা অন্তত একবার হলেও সব দেশের নাম শুনেছি। যা হোক, কিছু দেশ এতো অজানা এবং এতোটা ছোট যে বেশীরভাগ মানুষ জানে না দেশগুলো আসলেই বিদ্যমান! ছোট হওয়ার পাশাপাশি, তুলনামূলকভাবে কম জনসংখ্যারও অধিকারী এই দেশগুলো। বিশ্বের ক্ষুদ্রতম কয়েকটি দেশ সম্পর্কে জানবো আজকের আয়োজনে। চলুন জেনে নেওয়া যাক-

১. পালাউ

পৃথিবীর ক্ষুদ্রতম ১০ টি দেশ যেগুলোর অস্তিত্ব সম্পর্কে অনেকেই জানেন না!

© lonelyplanetwp

ওশেনিয়া মহাদেশের নান্দনিক এই দ্বীপরাষ্ট্রের নাম দ্য রিপাবলিক অব পালাউ। রেইনফরেস্ট, গাছপালা, পাখি ও স্বচ্ছ নীল জলের অদ্ভুত সুন্দর এই দেশের জলসীমায় বিলুপ্ত প্রায় ১৩০ প্রজাতির হাঙর রয়েছে।

২. নিউই

পৃথিবীর ক্ষুদ্রতম ১০ টি দেশ যেগুলোর অস্তিত্ব সম্পর্কে অনেকেই জানেন না!

© tourist-destinations

নিউই ওশেনিয়া অঞ্চলের একটি বড় দ্বীপ। এটি বেশ দর্শনীয় ও চমৎকার একটি জায়গা, কিন্তু এখানে পর্যটকদের আনাগোনা খুবই কম।সুতরাং, দেশটির আয়ের একমাত্র উৎস অধিকাংশই নিউজিল্যান্ডের বৈদেশিক সাহায্য। নিউইয়ের রাজধানী শহর নিজেই ৬০০ জনসংখ্যার একটি ছোট গ্রাম। যদিও এখানে একটি এয়ারপোর্ট এবং সমগ্র দেশের জন্য একটি চমৎকার সুপারমার্কেট আছে।

৩. সেন্ট কিটস্ এন্ড নেভিস

পৃথিবীর ক্ষুদ্রতম ১০ টি দেশ যেগুলোর অস্তিত্ব সম্পর্কে অনেকেই জানেন না!

© wondermondo

সেন্ট কিটস্ ও নেভিস, দুটি দ্বীপের সমন্বয়ে গড়ে উঠেছে সেন্ট কিটস্ এন্ড নেভিস দেশটি। ইকোনমিক সিটিজেনশিপ প্রোগ্রাম দেশটির আয়ের অন্যতম উৎস। এই প্রোগ্রামের আওতায় এখানকার চিনিকলে কমপক্ষে দুই লক্ষ পঞ্চাশ হাজার ডলার বিনিয়োগের মাধ্যমে নাগরিকত্ব লাভের সুযোগ পায় যে কেউ। এছাড়াও ৪ লক্ষ ডলার বিনিয়োগ করে জমি কিনেও পাওয়া যায় নাগরিকত্ব।

৪. দ্য প্রিন্সিপালিটি অব হাট রিভার

পৃথিবীর ক্ষুদ্রতম ১০ টি দেশ যেগুলোর অস্তিত্ব সম্পর্কে অনেকেই জানেন না!

© theinlandsea

১৯৭০ সালে  জর্জ ক্যাসলি তার খামারকে স্বাধীন একটি রাষ্ট্র হিসেবে ঘোষণা করেন। অস্ট্রেলিয়ার পার্থ থেকে ছয় হাজার কি.মি. উত্তরে অবস্থিত এই দেশটি অস্ট্রেলিয়া সরকার এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো স্বীকৃতি প্রদান না করলেও, দ্য প্রিন্সিপালিটি অব হাট রিভার দেশটির রয়েছে নিজস্ব মুদ্রা, ষ্ট্যাম্প ও পাসপোর্ট!

৫. টুভালু

পৃথিবীর ক্ষুদ্রতম ১০ টি দেশ যেগুলোর অস্তিত্ব সম্পর্কে অনেকেই জানেন না!

© 1.bp.blogspot

পূর্বে এলিস দ্বীপপুঞ্জ  নামে পরিচিত হাওয়াইয়ের প্রায় ৪২০০ কিমি দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং অস্ট্রেলিয়ার পূর্ব উপকূলের প্রায় ৩৪০০ কিমি উত্তর-পূর্বে অবস্থিত টুভালু প্রশান্ত মহাসাগরে অবস্থিত একটি ক্ষুদ্র দ্বীপরাষ্ট্র। ১৯৭৫ সালে টুভালু গিলবার্ট দ্বীপপুঞ্জ থেকে পৃথক হয়ে ১৯৭৮ সালে স্বাধীনতা লাভ করে।

৬. নাউরু

পৃথিবীর ক্ষুদ্রতম ১০ টি দেশ যেগুলোর অস্তিত্ব সম্পর্কে অনেকেই জানেন না!

© cdn-images-1

১৯৬৮ সালে স্বাধীনতা লাভ করা, অস্ট্রেলিয়া প্রভাবিত প্রবাল প্রাচীরে ঘেরা ও ডিম্বাকৃতির ছোট দ্বীপরাষ্ট্র নাউরুর কোন রাজধানী নেই। তাদের রয়েছে ঈর্ষণীয় শিক্ষার হার। দেশটির শতকরা ৯৯% লোকই শিক্ষিত।

৭. দ্য প্রিন্সিপালিটি অব সাবোর্গা

পৃথিবীর ক্ষুদ্রতম ১০ টি দেশ যেগুলোর অস্তিত্ব সম্পর্কে অনেকেই জানেন না!

© telegraph

১৯৪৬ সাল পর্যন্ত স্বাধীন থাকা এই দেশটি ফ্রান্স সীমান্তে অবস্থিত ইতালি প্রভাবিত একটি ছোট দেশ। যেটি এখনো পুনরায় স্বাধীনতা অর্জনে সংগ্রাম করে যাচ্ছে। দ্য প্রিন্সিপালিটি অব সাবোর্গাতে রয়েছে একজন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী, তিন সদস্যের সেনাবাহিনী ও তিন জন বর্ডার গার্ড!

৮. দ্য রিপাবলিক অব মোলোসিয়া

পৃথিবীর ক্ষুদ্রতম ১০ টি দেশ যেগুলোর অস্তিত্ব সম্পর্কে অনেকেই জানেন না!

© thevelvetrocket

২০১৭ সালে স্বাধীনতার ৪০ বছর পূর্ণ করা যুক্তরাষ্ট্রের বিস্তীর্ণ মরুভূমি নেভাডার এই দেশটির জনক কেভিন বাগ। দ্য রিপাবলিক অব মোলোসিয়া নামক এই দেশটির রয়েছে- মহাকাশ বিষয়ক প্রোগ্রাম, খেলনার মতো ছোট রেলপথ, আলাদা টাইম জোন, ট্রেডিং কোম্পানি, একটি ব্যাংক ছাড়াও, রয়েছে আলাদা প্রতীক, পতাকা ও জাতীয় সঙ্গীতও!

৯. সোভার্ন মিলিটারি অর্ডার অব মাল্টা

পৃথিবীর ক্ষুদ্রতম ১০ টি দেশ যেগুলোর অস্তিত্ব সম্পর্কে অনেকেই জানেন না!

© photos.wikimapia

১৯৯৪ সালে জাতিসংঘের সদস্য পদ পাওয়া, তিনটি দালানের সমন্বয়ে গঠিত একটি ছোট দেশ সোভার্ন মিলিটারি অর্ডার অব মাল্টা। তবে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ার মতো স্থানীয় বাসিন্দা, নিজস্ব অর্থনীতি কিংবা সামরিক বাহিনী নেই দেশটির।

১০. দ্য প্রিন্সিপালিটি অব সিল্যান্ড

পৃথিবীর ক্ষুদ্রতম ১০ টি দেশ যেগুলোর অস্তিত্ব সম্পর্কে অনেকেই জানেন না!

© photos.wikimapia

ভাবা যায়, মাত্র দুটি দুটি স্টিলের পাইপের উপর দাঁড়িয়ে আছে একটি দেশ! যার আবার রয়েছে রাজধানী, নিজস্ব পতাকা, পাসপোর্ট ও মুদ্রা! সাগরে ভাসমান বিশ্বের  ক্ষুদ্রতম এই দেশটি ইংল্যান্ডের উত্তর সাগরে অবস্থিত, যেটি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে সমুদ্র-দূর্গ হিসেবে ব্যবহৃত হতো।

আপনার মতামত