বিনোদন

লাস্যময়ী সেরা ১০ ধনী নায়িকা ও তাদের সম্পত্তির পরিমাণ জানলে আতকে উঠবেন (ভিডিও)

লাস্যময়ী সেরা ১০ – দক্ষিণী মুভির লাস্যময়ী সেরা দশ ধনী নায়িকা ও তাদের সম্পত্তির পরিমাণ ২০১৭ নিয়ে আমাদের আজকের প্রতিবেদন। তথ্যটি অনলাইনের বিভিন্ন ব্লগ থেকে সংগ্রহ করে আপনার সামনে ভিডিও আকারে প্রকাশ করেছি। অসাধারন এই ভিডিওটি আপনাকে দক্ষিনি মুভির নায়িকাদের সম্পত্তির ধারনা দিবে যা আপনাকে সত্যিই অবাক করবে। এছাড়াও আপনি ধারনা পাবেন সেরা দশ ধনী নায়িকাদের সম্পর্কে।

চলুন কথা না বাড়িয়ে ভিডিওটি দেখে নেই

আরোও পড়ুন-

মিঠুন চক্রবর্তীর মেয়ে দিশানীর বর্তমান গ্লামারাস লুক দেখলে বিস্মিত হবেন…

তারকাদের বাচ্চারা যেমনি দেখতে সুন্দর হোয় তেমনি তাদের প্রতিভা, খ্যাতি ও পারিবারিক আর্থিক স্বচ্ছলতা খ্যাতির চূড়ায় উঠতে চূড়ান্ত সহায়তা করে। আমরা সবসময় বলিউড স্টার ও তাদের সন্তানদের জীবনযাপন দেখে অবাক ও বিস্মিত হই।

এই সব স্টার কিডরা সবসময়ই মিডিয়ার আকর্ষনের কেন্দ্রবিন্দু থাকে এবং এরা তাদের বাবা মায়েদের থেকে অনেক বেশি তৈরি থাকে।

আমরা এমনই কিছু স্টার কিডের কথা আজ জানবো। নভ্য নভেলি নন্দা, জান্নবী কাপুর, সারা আলি খান এবং সামাইরা এরা সকলেই আমাদের দৃষ্টি আকর্ষন করে নিয়েছে তাদের লাস্য ও সৌন্দর্য দিয়ে। আমরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে তাদের অন স্ক্রিন শুভ মুহূর্তের দিকে, এবার এরা ছাড়াও আরো একজন স্টার কিড আমাদের সামনে উপস্থিত হয়েছেন। তিনি হলেন দিশানী চক্রবর্তী। আমাদের সকলের প্রিয় ডিস্কো ড্যান্সার খ্যাত মিঠুন চক্রবর্তীর কন্যা। দিশানী ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়াতে আলোড়ন তুলেছে।

আসুন আমরা দিশানীর শৈশব জীবন সম্পর্কে একটু বিস্তারিত জানি।

দিশানী বরাবর খুবই মিষ্টি

মিঠুন ও তার স্ত্রীর তিন ছেলে এবং দিশানী হলো তাদের দত্তক নেওয়া সন্তান। খুব ছোট্ট বেলায় চক্রবর্তী পরিবার তাকে দত্তক নেন। বর্তমানে খুব আদর ও যত্নে দিশানী বড় হচ্ছেন।

বর্তমানে দিশানী নিউইয়র্ক ফিল্ম এক্যাডেমিতে অ্যাকটিং কোর্স করছেন এবং সোশাল মিডিয়াতেও খুব সক্রিয় ও প্রাণবন্ত ভূমিকা নিচ্ছেন। বর্তমানে তার ইন্সটাগ্রামে ৫০,০০০+ ফ্যান ফলোয়ার রয়েছে। দিশানী দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর আসতে চলেছেন বলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে।

তার হাসি লক্ষ লক্ষ হৃদয় জয় করতে পারে।

দিশানীর তার বাবার সাথে ভীষণ ভালো সম্পর্ক।

আমরা চোখ সরিয়ে নিতে পারছি না দিশানীর দিক থেকে

দিশানী বলিউডে সবসময় সক্রিয় অংশগ্রহণ করেছেন এবং খুব শীগ্রই তিনি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে আসতে চলেছেন।

আমার মনে হয় মিঠুন চক্রবর্তী এই কারনেই তার কন্যাকে সমস্ত অ্যাওয়ার্ড ফাংসনে নিয়ে যেতেন।

যদিও ইতিমধ্যে দিশানী ফেসবুক, ইন্সটাগ্রাম ও অনান্য সোশাল মিডিয়াতে শাষন করা শুরু করে দিয়েছেন।

দিশানী যেকোন চরিত্রেই আলোড়ন ফেলে দেবার জন্য লুখিয়ে আছেন তা সে আধুনিক বা চিরচারিত যেই চরিত্রই হোক।

নিঃসন্দেহে বলা যায় দিশানী বলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে এলে অবশ্যই শাষন করবে।