আন্তর্জাতিক

৩ বছর একসঙ্গে লিভ ইন: বলিউড প্রেমিকের হাতে মার খেয়ে, নাক ফাটিয়ে হাসপাতালে ভর্তি!

৩ বছর একসঙ্গে লিভ- বলিউড অভিনেতা আরমান কোহলি ও তার বান্ধবী গত তিন বছর ধরে সান্তাক্রুজের একটি ফ্ল্যাটে একসঙ্গে থাকতেন। এ মাসের ৪ তারিখ আরমানের প্রেমিকা অভিযোগ করেন, ৩ তারিখ টাকা-পয়সা নিয়ে ঝগড়ার সময় তাকে ধাক্কা মেরে সিঁড়ি থেকে ফেলে দেন ৪৬ বছর বয়সী অভিনেতা আরমান কোহলি। এরপর তিনি চুল টেনে ধরে মাথা মেঝেতে আঘাত করেন। মাথায় ও কনুইয়ে আঘাত নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন ৩৫ বছর বয়সী নীরু। এরপরই নীরু সান্তাক্রুজ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

এ প্রসঙ্গে নীরু বলেন, ‘চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতে আমাকে হেনস্তা করেছে আরমান। প্রায় নাকটা ভেঙে ফেলেছিল। আমার কাছে সম্পর্কটা একটা বড় ভুল ছিল, তবু আমি তাকে একটার পর একটা সুযোগ দিয়েছি। আমি সেপ্টেম্বরে সম্পর্কটা ছেড়ে বেরিয়েও যাই। নতুন চাকরি নিয়ে দুবাইয়ে চলে যাই। সেখানেই শান্তিতে ছিলাম আমি।

তিনমাস পর আরমান আমাকে বাড়ি ফিরে আসতে বলে। আমি জানিয়ে দিয়েছিলাম, ফিরব না। তবুও সে আমার কাছে ফিরে আসার কথা বলতে থাকে। সে বলেছিল, তার আমাকে প্রয়োজন, তাই সে বদলে যাবে। আরও বলেছিল, তার পরিবার, ভাই ও তাকে একমাত্র আমি ভালো রাখতে পারব। আমি সব ছেড়ে চলে এসেছিলাম।’

অবশ্য থানায় অভিযোগ দায়ের হওয়ার পরেই পালিয়ে যান অভিনেতা। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত চলছিল। শেষ পর্যন্ত তার খোঁজ পায় পুলিশ। আজ আদালতে তোলা হয়েছিল অভিনেতাকে। আগামী ২৬ জুন পর্যন্ত আরমানকে পুলিশ হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

আপনার মতামত